Bangladesh is your dream investment destination | Contact: +88 02 956 1416 Fax: +880 2 956 2312 |info@bida.gov.bd

চীনের বাংলাদেশের বিল্ডিং ম্যাটেরিয়াল খাতে ২ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগের আগ্রহ প্রকাশ

চীনের বাংলাদেশের বিল্ডিং ম্যাটেরিয়াল খাতে ২ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগের আগ্রহ প্রকাশ

 

ঢাকা (25 এপ্রিল, ২০১৭): চায়না বিল্ডিং ম্যাটেরিয়ালস্ ফেডারেশন বাংলাদেশের ভবন নির্মাণ অবকাঠামো খাতে ২ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগের আগ্রহ প্রকাশ করেছে। ৬,৬০০ সদস্য তথা বিনিয়োগকারীর সমন্বয়ে গড়া ফেডারেশনটির ১২ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল আজ সকাল ১১:৩০ ঘটিকায় বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিডা) এর বোর্ডরুমে বিডা’র নির্বাহী চেয়ারম্যান জনাব কাজী এম আমিনুল ইসলামের সাথে সাক্ষাৎকালে এ আগ্রহ ব্যক্ত করে। ফেডারেশনের প্রতিনিধিদল ভবন নির্মাণের বিভিন্ন খাত যথা: ব্রিকস, টাইলস্, সিমেন্ট, সিরামিক, মোজাইক প্রভৃতি খাতে বাংলাদেশে বিনিয়োগে “Cooperation Proposal for China-Bangladesh Building Material Upgrade Project and the Development of Industrial Park” নামের একটি প্রকল্প প্রস্তাব বিডা’র নির্বাহী চেয়ারম্যানের নিকট উত্থাপন করে।

প্রতিনিধি দলকে ওয়ান স্টপ সার্ভিসের মাধ্যমে বিনিয়োগ সংক্রান্ত সব ধরনের সেবা প্রদান করা হবে উল্লেখ করে বিডা’র নির্বাহী চেয়ারম্যান বলেন, চীন বাংলাদেশে বিনিয়োগকারী অন্যতম প্রধান দেশ। পদ্মা সেতুসহ বাংলাদেশে বেশ কয়েকটি বড় প্রকল্পে চীন বিনিয়োগ করছে। বিগত কয়েক বছর ধরে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি তথা জিডিপি সাতের অধিক হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে। এ অর্থনৈতিক অগ্রযাত্রায় চীনা বিনিয়োগকারীদের বাংলাদেশের ”বিল্ডিং ম্যাটেরিয়াল” খাতে বিনিয়োগের উদ্যোগ একটি সময়োপযোগী ও সুচিন্তিত পদক্ষেপ।

ভবন নির্মাণ অবকাঠামো খাতে বাংলাদেশ-চীন সহযোগিতাকে চূড়ান্ত রূপ দিতে প্রাতিষ্ঠানিক প্লাটফরম গড়ে তোলার অংশ হিসেবে প্রতিনিধি দলটি বিডা’র সাথে এ মতবিনিময় সভায় মিলিত হয়। সভায় দুই পক্ষ এ ব্যাপারে একটি সমঝোতা স্মারক (MoU) স্বাক্ষরের ব্যাপারে একমত পোষণ করে। আগামীকাল (২৬ এপ্রিল, ২০১৭) সমঝোতা স্মারকটি স্বাক্ষর হবে বলে আশা করা যাচ্ছে।

সভায় চায়না বিল্ডিং ম্যাটেরিয়ালস্ ফেডারেশনের পরিচালক জনাব ডিং লিজহং, প্রকল্প পরিচালক জনাব ইয়ে ডংপিং, বিডা’র পরিচালক জনাব তৌহিদুর রহমান খান প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

 

 

(ফয়সল হাসান)

সিনিয়র তথ্য অফিসার

বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়।

 

Print Friendly
By | 2017-05-06T06:27:52+00:00 May 6th, 2017|News|0 Comments

About the Author:

Leave A Comment